Saturday, October 1, 2016

"URGING TO REBUILD BANGLADESH ELECTION COMMISSION BY ALL POLITICAL PARTIES PARTICIPATION FOR FUTURE BANGLADESH DEVELOPMENT: BY DUDU VICE CHAIRMAN OF BNP"

ইসি গঠনে আলোচনার উদ্যোগ নিন : দুদু
প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণ করুন। গতকাল শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী বন্ধু দল আয়োজিত স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠনে রাজনৈতিক দলের ভূমিকা ও জনগণের প্রত্যাশা শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। শামসুজ্জামান দুদু বলেন, সকলে মিলে আলোচনার বিষয়বস্তু হবে, আগামী নির্বাচন কোন সরকারের অধীনে হবে, দেশে স্থিতিশীল পরিবেশ ফিরে আনা, ব্যক্তিবিদ্বেষ নয় এবং দেশকে সমৃদ্ধ করার বিষয়ে আলোচনা হবে। আলোচনা-সমঝোতা ছাড়া গণতন্ত্র অর্থহীন। আমরা রাস্তায় গিয়ে আন্দোলন করে দাবি মানতে সরকারকে বাধ্য করব, এটি কোনো স্বাধীন দেশের ঘটনা হতে পারে না। আমরা আমাদের কথা সভা-সেমিনারে বলব, তিনি (প্রধানমন্ত্রী) বিবেচনা করবেনÑ এটিই গণতন্ত্র। তিনি বলেন, দীর্ঘ সফর শেষে আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরছেন। তিনি তিনবার প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন, দেশ পরিচালনা করেছেন। তিনি যেভাবেই ক্ষমতায় আসুন না কেন, তিনি এখন প্রধানমন্ত্রী। গণতন্ত্রের সপক্ষে দায়িত্ব পালন করার জন্য তার একটা সুযোগ রয়েছে। দেশে ফিরে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও স্বচ্ছ নির্বাচনের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে তিনি তার সহকর্মীদের নিয়ে উদ্যোগী হয়ে বিএনপিসহ সকল বিরোধী দলকে আলোচনার আহ্বান জানাতে পারেন। প্রধানমন্ত্রীর কাছে দেশবাসী এটা প্রত্যাশা করে। কিন্তু আমরা দেখছি, প্রধানমন্ত্রী আলোচনার পাশ কাটাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীকে বলতে চাই, আপনার কাছে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার জন্য একটি সুযোগ আছে। এটা হলো, দেশের সকল বিরোধী দলগুলোকে নিয়ে আলোচনায় বসতে হবে। তাই আর দেরি না করে বিরোধী দলগুলোকে আলোচনায় বসার জন্য আহ্বান জানান। : নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘সমসাময়িক সময়ে নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে সরকার, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও পেশাজীবীদের পক্ষ থেকে নানা কথাবার্তা বলা হচ্ছে। বিএনপির পক্ষ থেকেও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আনুষ্ঠানিকভাবে দলের বক্তব্য তুলে ধরেছেন। বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো তামাশার নির্বাচন এ দেশের মানুষ আর দেখতে চায় না। কারণ ওই নির্বাচন ছিল জাতির জন্য একটি কলঙ্ক। আমরা চাই, জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবে। রাজনৈতিক দলগুলো স্বাচ্ছন্দ্যে নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা দিতে পারবে, যেখানে মৃত্যুর ভয় থাকবে না।’ ইসি গঠন নিয়ে প্রস্তাব রেখে দুদু বলেন, স্বাধীন-সার্বভৌম ক্ষমতার অধিকারী কোনো ব্যক্তিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার করতে হবে। এছাড়া শিক্ষক, অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, সামরিক বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও পেশাজীবী নেতাদের মধ্য থেকে তিন-চারজন সহকারী নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ করা যেতে পারে। রাজনৈতিক দলের বাইরে থেকে নিতে চান, অসুবিধা নেই। কারণ দেশে এমন ধরনের হাজার হাজার লোক রয়েছেন। বিএনপির এ ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘স্পষ্ট কথাÑ আমরা দেখতে চাই, আগামী নির্বাচনের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে একটি স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে। সারাদিন কেমন যাবে, তা যেমন ভোরের সূর্য জানান দেয়; তেমনি এই সরকার আগামী দিনে কী চাচ্ছে, নির্বাচন কমিশন গঠনের মধ্য দিয়ে তা-ও আমরা বুঝতে পারব। সে জন্য এই নির্বাচন কমিশন গঠন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’ : বিএনপির সদ্য মরহুম নেতা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) আ স ম হান্নান শাহকে ‘লড়াই-সংগ্রাম করা মানুষ’ হিসেবে আখ্যায়িত করে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ওয়ান-ইলেভেনে যখন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বর্তমান সরকারের অনেক মন্ত্রী বন্দি ছিলেন, তখন তাদের মুক্তির দাবি ও ওয়ান-ইলেভেনের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন হান্নান শাহ। অথচ তাঁর মৃত্যুতে সরকারের কাছ থেকে আমরা প্রত্যাশিত সম্মান প্রদর্শনের ব্যাপারটি দেখলাম না। : বন্ধু দলের আহ্বায়ক শরীফ মোস্তফাজামান লিটুর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপির শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডা. ওবাইদুর রহমান, নির্বাহী সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, শাহবাগ থানা কৃষক দলের সভাপতি এম জাহাঙ্গীর আলম, নাগরিক দলের সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ মো. ওমর ফারুক পীর সাহেব প্রমুখ। : :
Majid, Complementary reproduced from The Daily Dinkal 

No comments: