Thursday, March 16, 2017

Press Release from JASOD



২৫ মার্চগণহত্যা দিবসরাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের প্রস্তাব পাস করায়
সংসদ নেতা, স্পীকারসহ সংসদ সদস্যগণকে জাসদের ধন্যবাদ অভিনন্দন জ্ঞাপন
আজ ১৬ মার্চ ২০১৭ বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় রমনাস্থ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট সেমিনার কক্ষে জাসদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় গত ১১ মার্চ জাতীয় সংসদে জাসদ দলীয় সংসদ সদস্য জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি কর্তৃক বিশেষ প্রস্তাব১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চ কালরাত্রিতে বর্বর পাকিস্তানি সেনাবাহিনী কর্তৃক সংঘঠিত গণহত্যাকে স্মরণ করে ২৫ শে মার্চকেগণহত্যা দিবসঘোষণা করা হোক এবং আন্তর্জাতিকভাবে দিবসের স্বীকৃতিসর্বসম্মতিক্রমে গৃহিত হওয়ায় মাননীয় সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মাননীয় স্পীকার এবং মাননীয় সংসদ সদস্যগণকে ধন্যবাদ অভিনন্দন জ্ঞাপন করা হয়। 

জাসদের সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় বিমান পর্যটন মন্ত্রী এবং বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়য়া, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, একাত্তরের ঘাতাক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির, সেক্টর্স কমান্ডার ফোরামের মহাসচিব হারুন হাবিব, জাসদ স্থায়ী কমিটির সদস্য . আনোয়ার হোসেন, ইকবাল হোসেন খান, এড. হাবিবুর রহমান শওকত, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহদাত হোসেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, জাসদের সহ-সভাপতি শফি উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রোকনুজ্জামান রোকন প্রমূখ

প্রধান অতিথির ভাষণে রাশেদ খান মেনন এমপি১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চ কালরাত্রিতে বর্বর পাকিস্তানি সেনাবাহিনী কর্তৃক সংঘঠিত গণহত্যাকে স্মরণ করে ২৫ শে মার্চকে গণহত্যা দিবস ঘোষণা করা হোক এবং আন্তর্জাতিকভাবে দিবসের স্বীকৃতিপ্রস্তাব উত্থাপন করায় শিরীন আখতার এমপিকে ধন্যবাদ জানান। তিনি ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি দীর্ঘদিন যাবৎ এই দাবি করে আসছিল বলে তাদেরকেও ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, ২৫ মাচ্যের গণহত্যা ছিল পৈশাচিকতার এক ভয়াবহ উদাহরণ। ২৫ শে মার্চের গণহত্যা ছিল পাকিস্তান সরকারের চূড়ান্ত বিশ্বাসঘাতকতার বহিঃপ্রকাশ। তিনি বলেন, ২৫ শে মার্চের গণহত্যার সংখ্যা নিয়ে যারা বিতর্ক করেন তাদের মতলব হলো বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে বিতর্কিত করা। তিনি বলেন, গণহত্যা দিবস নিজেরা পালন করলে হবে না, এটিকে বিভিন্ন দেশে দেশে পালন করার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। 

জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চ কালরাত্রিতে বর্বর পাকিস্তানি সেনাবাহিনী কর্তৃক সংঘঠিত গণহত্যাকে স্মরণ করে ২৫ শে মার্চকেগণহত্যা দিবসঘোষণা করা হোক এবং আন্তর্জাতিকভাবে দিবসের স্বীকৃতিসর্বসম্মতিক্রমে গৃহিত হওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি ২৫ শে মার্চ গণহত্যা দিবস পালনের স্বীকৃতি আদায়ের জন্য এবং এই গণহত্যা যারা করেছেন তাদের বিচার ১৯৫ জন পাকিস্তানী সৈন্যের বিচারের দাবি জানান। একই সাথে বাংলাদেশে যারা মানুষ পুড়িয়েছেন তাদেরও বিচারের দাবি জানান। তিনি ২৫ শে মার্চ গণহত্যা দিবস পালনের আহ্বান জানান এবং আন্তর্জাতিকভাবে গণহত্যা দিবসের স্বীকৃতির দাবি জানান। 
বার্তা প্রেরক 


দফতর সম্পাদক Sangbadik Majid

No comments: