Thursday, June 29, 2017

Preess release from : CPJ

Vietnamese blogger stripped of citizenship, deported





New York, June 26, 2017—Vietnamese President Tran Dai Quang should restore blogger Pham Minh Hoang’s citizenship and should allow him to reside and work freely in the country, the Committee to Protect Journalists said today.
Hoang told the The Associated Press that police officers burst into his house the night of June 23, took him to a detention center, and forced him on a plane to Paris the following day. Hoang, a university math teacher and blogger associated with the California-based Viet Tan opposition group, holds French citizenship.
According to Deutsche Presse-agentur, President Quang revoked Hoang’s Vietnamese citizenship on May 17, but according to Reuters, Hoang learned of the decision only on June 1, from the French consul-general. The blogger unsuccessfully attempted to appeal the decision and to remain in Vietnam, according to Agence France-Presse. Hoang told the AP that when he refused deportation, officials reminded him that his wife and daughter were still living in Vietnam.
“Stripping Pham Minh Hoang of his Vietnamese citizenship and forcing him to leave the country are exceptionally cruel responses to dissent,” said Steven Butler, CPJ’s Asia program coordinator. “Vietnam should allow Hoang to return home to his family and should cease trying to silence voices it does not want heard.”
Hoang told the AP that he will continue his political activism from France, though he hopes he will be able to return to Vietnam.
Vietnamese Foreign Ministry spokeswoman Le Thi Thu Hang last week said the decision to revoke Hoang’s citizenship was justified because it was “conducted in accordance with the provisions of Vietnamese law,” Reuters reported. Vietnam’s Foreign Ministry and Vietnam’s Embassy to the United States did not respond to CPJ’s requests for comment.
Police arrested Hoang in 2010 and charged him with attempting to overthrow the government, citing 33 articles he had written under his pen name, Phan Kien Quoc, in which he criticized one-party rule, alleged corruption, environmental degradation, and Chinese influence. He was initially sentenced to three years in prison, but was released in January 2012 to serve three years under house arrest, having spent 17 months in prison, in recognition of his cooperation with authorities and renunciation of the Viet Tan. According to media reports the blogger did not stop publishing.

...
Curtesey :

Mukti M Majid
Dhaka




Wednesday, June 28, 2017

Press Briefing from Shariatpur

 †kL nvwmbvi †bZ…‡Z¡ †`k Dbœqb I mg„w×i w`‡K GwM‡q hv‡”Q
---------- evnv`yi †ecvix

(1bs Qwemn)
evsjv‡`k QvÎjx‡Mi mv‡eK mfvcwZ I kixqZcyi-3 (†f`iMÄ, WvgyW¨v I †MvmvBinvU) Avm‡b AvIqvgxjx‡Mi g‡bvbqb cÖZ¨vkx evnv`yi †ecvix e‡j‡Qb, †`kiZœ †kL nvwmbvi †bZ…‡Z¡ †`k mg„w×i w`‡K GwM‡q hv‡”Q, GwM‡q hv‡e| Avi †kL nvwmbv ÿgZvq _vK‡j G †`‡ki gvbyl kvwšÍ‡Z _v‡K| ZvB Dbœq‡bi aviv Ae¨vnZ ivL‡Z RbM‡Yi ivq wb‡q  †`kiZœ †kL nvwmbv AveviI ÿgZvq Avm‡e| KviY DbœZ I mg…× evsjv‡`k Mo‡Z †`kiZœ †kL nvwmbvi weKí †bB| †`‡ki Dbœqb AMÖMwZ a‡i ivL‡Z †kL nvwmbvi weKí †bB| wZwb AviI e‡jb, †`kiZœ †kL nvwmbvi miKvi Dbœq‡bi miKvi| GB Dbœq‡bi miKv‡ii cÖZxK †bŠKv| Kv‡RB †bŠKv gvK©vq †fvU w`b| eyaevi mKv‡j kixqZcyi-3 (†f`iMÄ, WvgyW¨v I †MvmvBinvU) Avm‡bi wewfbœ GjvKvq wZwb MYms‡hvM I gZwewbgqKv‡j Gme K_v e‡jb|Gmgq `jxq wewfbœ ¯Í‡ii †bZKgx©iv Dcw¯’Z wQ‡jb|-  †cÖmweÁwß|

1bs Qwei K¨vckb:
evsjv‡`k QvÎjx‡Mi mv‡eK mfvcwZ I kixqZcyi-3 Avm‡b AvIqvgxjx‡Mi g‡bvbqb cÖZ¨vkx evnv`yi †ecvix MYms‡hvM Ki‡Qb|

evZv© †cÖiK
†gvt †ivgvb AvK›`
kixqZcyi
†gvevBjt 01836990408
B-†gBj: ahmedroman681@gmail.com
Zvs 28-6-2017


Monday, June 26, 2017

Bangladesh CYcling Lane Pastobayon Porishad Implementation

Ò  ü`‡q S‡o hvK hZ Av‡Q Ø›Ø, cÖv‡Y cÖv‡Y wb‡q hvI C` Avb›`Ó
evsjv‡`k C` Avb›` †kvfvhvÎv-2017
C‡`i 3q w`b we‡Kj 3:30 wgwbU, 28 †k Ryb-2017
QvÎ wkÿK †K›`ª (wUGmwm cÖv½Y), XvKv wek¦we`¨vjq
‡cÖm weÁwß
m¤§vwbZ mywa
C‡`i ï‡f”Qv wbb,
gymwjg Rvnv‡bi me© e…nËg cweÎ Drme C`yj wdZi | mvivwe‡k¦ h_vh_ gh©v`vq I kvwšÍc~Y© fv‡e cvwjZ n‡q Avm‡Q C` Drme|‡mB Av‡jv‡K mvg‡b ‡i‡L   cÖwZ eQ‡ii gZ Gev‡iv evsjv‡`k C` Avb›` ‡kvfvhvÎv cwil` Av‡qvR‡b 8wU wefv‡Mi cÖwZwbax‡`i mgš^‡q D‡`¨v‡M 64 ‡Rjvi gvby‡li ¯^ZtùyZ© AskMª‡Yi ga¨w`h‡q "evsjv‡`k C` Avb›` ‡kvfvhvÎv 2017" C‡`i Z…Zxq w`b , weKvj 3:30 wgwbU QvÎwkÿK ‡K›`« (TSC) cªv½Y XvKv wek¦ we`¨vjq ,Abyôvb AbywôZ n‡Z hv‡”Q| Abyôv‡b mfvcwZ¡Z Ki‡eb cwil‡`i mfvcwZ Avwgbyj Bmjvg UzeŸym Abyôv‡b c«avb Aw_wZ wn‡m‡e Dcw¯’Z _vK‡eb Av. Av. g. m. Avwiwdb wmwÏK, DcvPh©, XvKv wek¦ we`¨vjq we‡kl Aw_wZ wn‡m‡e _v‡eb ‡mwjbv ‡nv‡mb , K_vmvwnwZ¨K, DcbvwmK,wPÎbvqK, AvKei ‡nv‡mb cvVvb dviæK, el©xqb Awf‡bZv wgkv mI`vMvi , mfvcwZ , evsjv‡`k PjwPÎ wkíx mwgwZ, ûgvqb Kwei , mn mfvcwZ, XvKv gnvbMi AvIqvgx jxM (`wÿY) AvjnvR¡ L›`Kvi iæûj Avwgb,cwiPvjK, (Gdwewmwm AvB ), Kvqmvi nvwg` mv‡eK dzUejvi, kwn` gvngy` kwn`yjøvn, mfvcwZ, XvKv hye dvD‡Ûkb| m.g kvgmyj Avjg e¨e¯’vcbv cwiPvjK, Avbvb MÖæc| ‡gvt gymv, mfvcwZ, †`we`vm NvU mgvR Kj¨vb ms¯’v| bvwRg gywÏb Avn‡¤§` bvwRg, mfvcwZ, cyivb XvKv, bvMwiK D‡`¨vM KwgwU, Avãyj Iqvwn` iv‡mj, `ßi m¤úv`K, evsjv‡`k ¯‹vDU MvBW †d‡jvwmc|
mÂvjbvq Ki‡eb, jveb¨ †iLv|

GB Abyôv‡bi mwPÎ msev` I Qwe msMÖ‡ni j‡¶¨ Avcbvi eûj cÖPvwiZ RvZxqˆ`wbK/B‡jKUªwbK AbjvBb wgwWqvi c¶ †_‡K GKRb mvsevw`K/d‡Uvmvsevw`K/K¨v‡givg¨vb †cÖi‡Yi Rb¨ we‡kl Aby‡iva Rvbvw”Q|
we¯ÍvwiZ Z‡_¨i Rb¨t 01914425725|
                                                                                                             
Avwid Avn‡g`                                                                                   Avwgbyj Bmjvg UzeŸym
AvnŸvqK, Drme KwgwU                                                                                 mfvcwZ
evsjv‡`k mvB‡Kj †jb ev¯Íevqb cwil`                                        evsjv‡`k mvB‡Kj †jb ev¯Íevqb cwil`


                      171 †evinvbcyi †ivW nvRvixevM, wSMvZjv, XvKv  ( MUkti M Majid), Peelkhana Post Office 

Press release from DEsh Bachao Manush Banchao

ঈদে ঘরে ফেরার নিশ্চয়তা দিতে সরকার ব্যর্থ

বর্তমান সরকার ঈদ উদযাপনে মানুষের ন্যূনতম ঘরে ফেরার নিশ্চয়তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাসুজ্জামান দুদু
শনিবার (২৪ জুন) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও নামক একটি সংগঠন মানববন্ধনের আয়োজন করে। 

তিনি বলেন, ‘ভারত আমাদের বন্ধু। ১৯৭১ সালে যুদ্ধে গণতন্ত্র স্বাধীনতা অর্জনে তারা আমাদের সহযোগিতা করেছে। তেমনি এদেশের গণতন্ত্র স্বাধীনতা বিপন্ন করতে গত ২০১৪ সালের জানুয়ারির নির্বাচনে ভারত সহযোগিতা করেছে। শুধূ তাই নয়, বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর থেকেই ভারত সীমান্তে এদেশের মানুষকে নির্বিচারে হত্যা করে চলেছে। তাই আজকে যদি দেশে নির্বাচিত গণতান্ত্রিক সরকার থাকতো তাহলে আমরা যেমন তিস্তার পানি পেতাম তেমনি সীমান্তে মানুষ হত্যা বন্ধ করতে তীব্র প্রতিবাদ করতে পারতাম। আমরা ভারতের সঙ্গে যুদ্ধ করতে চাই না। আলাপ-আলোচনার মধ্যে দিয়ে এই সকল সমস্যা সমাধান চাই।’ 
শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘বর্তমান সরকার ঈদ উদযাপনে দেশে মানুষের ন্যূনতম ঘরে ফেরার নিশ্চয়তা দিতে পারে না। সড়ক দুর্ঘটনা ভয়াবহ রুপ নিয়েছে। চাঁদাবাজী স্মরণকালে রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এরা শুধু মানুষ খুন করাই নয়, মানুষের সুস্থতাও কেড়ে নিয়েছে। এই সরকার শুধু নিজ দল ছাড়া কিছুই দেখতে পায় না।
বর্তমান সরকারকে নতজানু সরকার আখ্যা দিয়ে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান বলেন, ‘বর্তমান সরকার গণবিরোধী সরকার। ভারতের মানুষ সীমান্তে মানুষ হত্যা করে আর এরা গণতান্ত্রিক কর্মীদের হত্যা করে। দুই হত্যাকারীর কবলে বাংলাদেশ। এর থেকে বেরিয়ে আসার পথ হচ্ছে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার পথ।
তিনি বলেন, ‘দেশের সকল মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। ভোটাধিকার নিশ্চিত করে সহায়ক সরকারের মধ্যে দিয়ে একটি নির্বাচন আদায় করে শুধু মাত্র এই সরকার নয়, ভারতকেও উপযুক্ত জবাব দিতে পারি। ভারতকে যদি জবাব দিতে হয় জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সীমান্তে হত্যা বন্ধ করতে মানুষের গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আর সেজন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গণমানুষের সরকার প্রতিষ্ঠায় যে আন্দোলন করছেন সেই আন্দোলনে সবাইকে অংশগ্রহণ করতে হবে।
সাবেক এই ছাত্রনেতা বলেন, ‘রাত পেরোলেই ঈদ অথচ আমাদের সেতুমন্ত্রী গতকালও বলেছে কোথাও যানজট নাই। পুলিশের আইজিপি বলেছেন তিনি কোথাও যানজট দেখেননি। কিন্তু গণমাধ্যমের কল্যাণে দেখতে পারছি ভিন্ন চিত্র। কোথাও কোথাও ৩০ থেকে ৫০ মাইল দীর্ঘ জুড়ে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। অচল অবস্থায় মানুষ বসে আছে ঘন্টার পর ঘন্টা।’ 
সম্প্রতি বিএনপির মহাসচিবসহ দলের সিনিয়র নেতাদের ওপর আক্রমণ চালানো হয়েছে। অথচ লজ্জার ব্যাপার হচ্ছে আঘাতপ্রাপ্তদের মামলা নেয়া হয় না, মামলা নেয়া হয় আক্রমণকারীদের। তাই একটি কথা স্পষ্ট করে বলছি- ঈদের পর জবাব দেয়া হবে। অনেক রক্ত দিয়েছি, রক্তে কেনা বাংলাদেশ। রক্তে কেনা গণতন্ত্র স্বাধীনতা। আর রক্ত দিয়েই আমরা আমাদের দায়মুক্তি আমাদের অর্জিত গণতন্ত্র স্বাধীনতাকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করবো।’ 
সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-তথ্য বিষয়ক সম্পাদক কাদের গনি চৌধুরী, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান তামান্না, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা সুরঞ্জন ঘোষ, নুরুজ্জামান সরদার সংগঠনের সহ-সভাপতি নাজমুল হােসেন রনি, সহ-সাংগঠনিক শরিফুল ইসলাম শরিফ, রুবেল শেখ, বাংলাদেশ গণ ঐক্যের সভাপতি অারমান হােসেন পলাশ প্রমুখ