Wednesday, June 21, 2017

Press release from Jatiyo Chatro Somaj) [KZ]

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর উপর কাপুরুষোচিত হামলার তীব্র প্রতিবাদ দুস্কৃতকারীদের গ্রেফতারের দাবি- জাতীয় ছাত্র সমাজ

জাতীয় ছাত্র সমাজ এর আহব্বায়ক কাজী ফয়েজ আহম্মেদ বলেন, অবৈধ ক্ষমতা স্থায়ী করনের লক্ষ্যে সরকার বিরেধী নেত্রী-বৃন্দের উপর নেক্কার জনক হামলা চালিয়েছে। হামলা-মামলা গুম-খুনের মধ্যদিয়ে সরকার বিরোধীদলের গণতান্ত্রীক অধিকার হরন করছে। ১৮ই জুন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর উপর হামলা তারই বহি:প্রকাশ। কাপুরুষোচিত এই হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। অতীতে কোন সরকার হামলা-মামলা করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি এই সরকার টিকে থাকতে পারবেনা। কাজী ফয়েজ আহম্মেদ সরকারের উদ্দেশ্য বলেন, প্রতিটা হত্যা, গুম, খুন এর হিসাব দিতে হবে এই সরকার কে। ছাত্রলীগ, যুবলীগ সন্ত্রাসীরা যে কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়েছে অবিলম্বে তাদের গ্রেপ্তার দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি যানাচ্ছি। 

সভায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহম্মদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। 

ইফতার যৌথ সভায় কেন্দ্রীয় আজ কার্যালয়ে উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন, সদস্য সচিব সোলায়মান শামিম, ঢাকা মহানগর সভাপতি সাজিদ মাহমুদ, সাধারন সম্পাদক সাইদ চৌঃ, মেহেদী হাসান, ফাহিম, মোঃ মহসিন, আবির হাওলাদার ওমায়েদ রহমান সহ অন্যান্য ছাত্র নেত্রীবৃন্দ  


Press release from Bongobonshu Porishad

Kwe mywdqv Kvgv‡ji 106Zg Rb¥evwl©Kx Dcj‡¶¨
e½eÜz cwil‡`i ï‡f”Qv

e½eÜz cwil‡`i mvaviY m¤úv`K I evsjv‡`k AvIqvgx jx‡Mi Dc‡`óv gÛjxi m`m¨ Wvt Gm G gv‡jK e½eÜz cwil‡`i mv‡eK mfvcwZ I wewkó Kwe †eMg mywdqv Kvgv‡ji 106Zg Rb¥evwl©Kx Dcj‡¶¨ Kwei ¯§„wZi cÖwZ kª×v wb‡e`b K‡i‡Qb| Wvt Gm G gv‡jK e‡jb, Kwe mywdqv Kvgvj wQ‡jb evsjv‡`‡ki bvix Av‡›`vj‡bi AMÖ`~Z| eûgyLx cÖwZfvgqx GB bvix Avg„Zz¨ gyw³eyw× PP©vi cvkcvwk mv¤cÖ`vwqKZv I †gŠjev‡`i wei“‡× msMÖvg K‡i‡Qb|

wZwb e½eÜz cwil‡`i mfvcwZi `vwqZ¡ AZ¨š— mdjZvi mv‡_ cvjb K‡ib| e½eÜzi ¯^‡cœi †mvbvi evsjv cÖwZôvi msMÖv‡g wbijmfv‡e KvR K‡i‡Qb| †`‡ki MYZš¿ cÖwZôvq wZwb Ae`vb †i‡L‡Qb|

wZwb wPiw`b mK‡ji ¯§„wZc‡U kª×v I fv‡jvevmvq wPi RvMÖZ _vK‡eb| Zvi GB Rb¥w`‡b e½eÜz cwil‡`i c¶ †_‡K Mfxi kª×vÄwj|

evZ©v †cÖiK

gwZDi ingvb jvëz
cÖPvi m¤úv`K

e½eÜz cwil`

Sunday, June 18, 2017

Press release from Desh Bachao Manush Bachao { Save the country , Save the human]

কারও ক্ষমতা নেই সেই সহায়ক সরকার ঠেকানো: দুদু

আগামী নির্বাচন সহায়ক সরকারের অধিনেই হবে জানিয়ে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন,কারও ক্ষমতা নেই সেই সহায়ক সরকার ঠেকানো।

তিনি বলেন,২০১৯ সালে বাংলাদেশে নির্বাচন হবে সেই নির্বাচনে বিএনপি জয়লাভ করে বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া আবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন,তারেক রহমান বাংলাদেশে ফিরে আসবে। তবে সেই নির্বাচন সহায়ক সরকারের অধিনে দিতে সরকারকে বাধ্য করা হবে। কারও ক্ষমতা নেই সহায়ক সরকার ঠেকানো।

শনিবার(১৭ জুন) বিকেলে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির স্বাধীনতা হলে জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত"বর্তমান রাজনীতি ভবিষ বাংলাদেশ শীর্ষক এক আলোচনা সভা ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শামসুজ্জামান দুদু জানান,সহায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচনে যদি আওয়ামী লীগ ৩০ সিটের বেশি পায় তাহলে বিএনপির অফিসে তালা লাগিয়ে দিবো রাজনীতি করবো না।

তিনি আরও বলেন,আগামী দিনে দেশে সুষ্ঠ নির্বাচন করতে হলে,আগে নির্বাচনী পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে সরকারকে সেই সাথে প্রশাসনে পরিবরতন আনতে হবে।

দেশে কোন রাজনীতি নেই মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন,পার্বত্য অঞ্চলে এত গুলো মানুষ নিহত হওয়ার পরেও প্রধানমন্ত্রী বিদেশ সফরে গেলন,তিনি যেতেই পারেন রাষ্ট্রের গুরুত্ব পূর্ন কাজে কিন্তু এত গুলো মানুষ নিহত হওয়ার বিদেশ যাওয়া কোনভাবেই কাম্য নয়। শে রাজনীতি না থাকার কারনেই এটি সম্ভব হয়েছে। 

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে এবং সহ-সভাপতি নাজমুল হোসেন রনির সঞ্চালনায় আলোচনা সভাও ইফতার মাহফিলে আরও বক্তব্য রাখেন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব,প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবি এম মোশাররফ হোসেন,কৃষকদলের কেন্দ্রীয় নেতা মাইনুল ইসলাম,ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি ফরিদ উদ্দীন আহমেদ,জিনাফের সভাপতি মিয়া মোহাম্মাদ আনোয়ার,সংগঠনের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক এস এম শওকত হোসেন,সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম প্রমুখ